iQOO 11 ফোনের প্রথম সেল 13ই জানুয়ারি, রয়েছে দুর্দান্ত ফিচার

ভারতের বাজারে iQOO 11 স্মার্টফোনকে 10ই জানুয়ারি লঞ্চ করা হয়েছে। এটি ইতিমধ্যেই চীন এবং দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ায় উপলব্ধ রয়েছে। এবার ফোনটিকে ভারতের বাজারে আনা হয়েছে।

iQOO 11 ফোনে রয়েছে 144 হার্টজ রিফ্রেশ রেটের Samsung E6 AMOLED ডিসপ্লে, সর্বোচ্চ 16GB RAM, সর্বশেষ Android 13 অপারেটিং সিস্টেম, Qualcomm এর নতুন Snapdragon 8 Gen 2 প্রসেসর  এবং 120W ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট ব্যাটারি।

এছাড়া এতে পেয়ে যাবেন ভিসি লিকুইড কুলিং সিস্টেম, ডুয়েল স্টেরিও স্পিকার সহ একাধিক উল্লেখযোগ্য ফিচার। তাহলে চলুন দেখে নেওয়া যাক iQOO 11 স্মার্টফোনের দাম ও ফিচার সম্পর্কে বিস্তারিত।

iQOO 11

iQOO 11 স্মার্টফোনের দাম শুরু হয়েছে 59999 টাকা থেকে। এই দাম ফোনটির 8GB RAM ও 256GB স্টোরেজ ভেরিয়েন্টের। আবার 16GB RAM ও 256GB স্টোরেজ যুক্ত হাই-এন্ড ভেরিয়েন্টের দাম রাখা হয়েছে 64999 টাকা। ফোনটিকে আলফা (গ্লাস ব্যাক) বা লেজেন্ড (সিলিকন লেদার) কালারে পাওয়া যাবে।

ফোনটিকে আজ দুপুর 12টা থেকে ই-কমার্স সাইট অ্যামাজন ইন্ডিয়া এবং সংস্থার অফিসিয়াল ওয়েবসাইট (iQOO.com) -থেকে বিক্রয় শুরু হয়েছে। আর প্রথম সেলের অংশ হিসাবে একাধিক অফারও দেওয়া হয়েছে এতে। যেমন, ক্রেতারা HDFC এবং ICICI ব্যাঙ্কের ক্রেডিট/ডেবিট কার্ড ব্যবহার করে ক্রয় করলে ফ্লাট 5000 টাকা ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট পেয়ে যাবেন। 

আরও পড়ুনঃ Fire Boltt Rocket স্মার্টওয়াচ ব্লুটুথ কলিং ফিচার সহ লঞ্চ হল, দেখুন দাম ও ফিচার

পুরোনো মোবাইল এক্সচেঞ্জ করলে 4000 টাকা পর্যন্ত ছাড় দেওয়া হবে। আবার অ্যামাজনের প্রাইম মেম্বাররা ধার্য মূল্যের উপর অতিরিক্তভাবে আরো 1000 টাকা ইনস্ট্যান্ট ডিসকাউন্ট পেয়ে যাবেন, সাথে সেল শুরুর 24 ঘন্টা আগেই অর্থাৎ 12ই জানুয়ারি দুপুর 12টা থেকে ফোনটির আর্লি অ্যাক্সেস পেয়ে যাবে।

iQOO 11 ফোন ফিচার

iQOO 11 স্মার্টফোনে দেওয়া হয়েছে কর্নিং গরিলা গ্লাস ভিক্টাস যুক্ত 6.78-ইঞ্চির 2K Samsung E6 AMOLED পাঞ্চ-হোল ডিসপ্লে। এর স্ক্রীন রেজুলসন 3200 পিক্সেল বাই 1440 পিক্সেল। এর ডিসপ্লে 10-বিট কালার, 517ppi পিক্সেল ডেনসিটি, 144 হার্টজ রিফ্রেশ রেট, এবং 300 হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট সাপোর্ট করবে। 

ওভার হিটিংয়ের জন্য এতে দেওয়া হয়েছে ভিসি লিকুইড কুলিং সিস্টেম। iQOO 11 স্মার্টফোনে 5000mAh এর পাওয়ারফুল ব্যাটারি দেওয়া হয়েছে, যা 120W ফাস্ট ওয়্যারড চার্জিং প্রযুক্তি সাপোর্ট করবে। এর ব্যাটারি 8 মিনিটে 50% চার্জ হবে যা কোম্পানি দাবী করেছে।

কানেক্টিভিটির জন্য এতে পেয়ে যাবেন ডুয়াল সিম স্লট, 5G নেটওয়ার্ক, Wi-Fi 6 ভার্সন, Bluetooth V5.3 ভার্সন, GNSS, NFC, এবং ইউএসবি টাইপ-সি পোর্ট। এতে দেওয়া হয়েছে ডুয়াল স্টেরিও স্পিকার সিস্টেম, একটি আইআর (IR) সেন্সর এবং অপটিক্যাল ফিঙ্গারপ্রিন্ট সেন্সর। 

পারফরম্যান্সের জন্য ফোনটিতে Qualcomm Snapdragon 8 Gen 2 প্রসেসর দেওয়া হয়েছে। এতে 16GB পর্যন্ত LPDDR5x RAM এবং 256GB UFS 4.0 ইন্টারনাল স্টোরেজ রয়েছে। অপারেটিং সিস্টেম হিসাবে এতে আপনি পেয়ে যাবেন Android 13 ভিত্তিক Funtouch OS 13 কাস্টম ইউজার ইন্টারফেস প্রিলোডেড।

iQOO 11 ফোনের ব্যাক প্যানেলে ট্রিপল ক্যামেরা সেটআপ দেওয়া হয়েছে এই ক্যামেরাগুলি হল – OIS-এনাবল 50 মেগাপিক্সেলের Samsung GN5 প্রাইমারি ক্যামেরা, 8 মেগাপিক্সেলের আল্ট্রা-ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স এবং 2X জুম সহ 13 মেগাপিক্সেলের টেলিফটো শ্যুটার। সেলফি এবং ভিডিও কলিং এর জন্য ফোনটির সামনে 16 মেগাপিক্সেলের ফ্রন্ট ক্যামেরা রয়েছে।

Post a Comment

Previous Post Next Post